এই ব্যাঙ্কে বই থাকলেই ২০০০০ টাকার কেনাকাটা করতে পারবেন।


আপনার কি ক্রেডিট কার্ড আছে? না থাকলে এখুনি এই ব্যাঙ্কে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে নিন। ক্রেডিট কার্ড কি জানেন না? আমি বলে দিচ্ছি। এই কার্ড টি থাকলে আপনি লাখ লাখ টাকার শপিং করতে পারবেন এমন কি আপনার ব্যাঙ্কে জিরো ব্যালান্স থাকলেও সব কিছু কেনাকাটা করতে পারবেন। এমনকি বেশি দামের জিনিস কিস্তি তেও কিনতে পারবেন। প্রভিতি কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় এই কার্ডটি সবাই পাইনা । বড় বড় বিজনিসম্যান ও বিত্তশালীরা পেয়ে থাকেন।
কিন্তু এখন আর চিন্তা নেই আপনার যদি IDFC ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট থাকে তবেই পাবেন। না থাকলে এখুনি খুলেনিন।

ePayLater নামে এক সংস্থার সঙ্গে জোট বেঁধে এই পরিষেবা আনতে চলেছে ব্যাঙ্কটি। আপনার মোবাইল নম্বর UPI-এ নথিভুক্ত থাকলেই মিলবে এই পরিষেবা। তবে সেক্ষেত্রে UPI-তে দাম মেটানো যায় এমন দোকান থেকেই মিলবে এই পরিষেবা। 
IDFC ব্যাঙ্কের সিওও আবতার মোঙ্গা জানিয়েছেন, নোটবাতিলের পর আমাদের দেশে ডিজিটাল লেনদেন অনেকটা বেড়েছে। বিজনিসম্যান ও বিত্তশালীরা বেশি ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করছেন। কিন্তু স্বল্পবিত্তদের ডিজিটাল ঋণ দানের এখনো তেমন কোনও ব্যবস্থা নেই। তাই আমরা UPI-কে ব্যবহার করে ePayLater-এর সঙ্গে জোট বেঁধে একটি ব্যবস্থা তৈরির চেষ্টা করছি।

ePayLater-এর প্রতিষ্ঠাতা অর্ক ভট্টাচার্য বলেন, দেশে ৩.৫ কোটি ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারী আছে। কিন্তু কম  মূল্যের লেনদেনের ক্ষেত্রে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের তেমন প্রচার নেই। সেক্ষেত্রে ePayLater-এর পরিষেবা ব্যবহার করতে পারেন গ্রাহকরা। এক্ষেত্রে ঋণ গ্রহণের ১৪ দিনের মধ্যে তা পরিশোধ করতে হবে। সেজন্য IDFC ব্যাঙ্কের সঙ্গে চুক্তি করেছে সংস্থাটি।
সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, এই পদ্ধতিতে সর্বোচ্চ ২০,০০০ টাকা পর্যন্ত কেনাকাটা করতে পারবেন।
পরিষেবা পেতে গেলে সবার আগে আপনাকে  ePayLater অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। গ্রাহকের সঞ্চিত সম্পদ অনুসারে ঋণের পরিমাণ নির্ধারিত হবে। ঋণ গ্রহণের ১৪ দিনের মধ্যে তা পরিশোধ করতে হবে। এই সময়ের জন্য কোনও সুদ দিতে হবে না আপনাকে। তার পর প্রতি মাসে ৩ শতাংশ হারে সুদ দিতে হবে আপনাকে।
আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে নিচের ভিডিও টি দেখেনিন।


No comments

Thanks for giving your opinion.

Theme images by merrymoonmary. Powered by Blogger.